...

Natun Bangla Kobita Lekha | কবিতাগুচ্ছ | মিলন কুমার মুখার্জি | Top New 2023

Sharing Is Caring:

মিলন কুমার মুখার্জি – সূচিপত্র [Natun Bangla Kobita Lekha]

শিশু দিবসের গ্লানি – মিলন কুমার মুখার্জি

ক্লান্ত দিনের শেষে
ঘরের কোণে এসে
ভেবে চলি একা একা –
নিষ্ঠুর এক গ্ৰহ
হয়ে ওঠে দুঃসহ,
চোখেতে যায় না দেখা!

হিংসা দ্বেষের স্রোতে
মুছে গেছে ধরা হতে
জীবনের মূল ধারা।
নিস্প্রাণ কিছু কথা
ঢেকে রাখে আবিলতা।
দশদিক দিশাহারা!

পৃথিবীর কী অসুখ –
জানে না তো কচি মুখ।
ফুলে ভরা ফুলদানি ।
আমার জমানো পাপ,
কি করুণ অভিশাপ!
শিশু দিবসের গ্লানি!

ছোট্টবেলা – মিলন কুমার মুখার্জি

শূন্য আকাশ, একলা ঘুড়ি,
গোঁৎ খেয়ে তার হঠাৎ নেমে আসা।
ওইখানেতে কবেই গেছে চুরি
ছোট্টবেলার পাগল ভালোবাসা।

লেত্তি ছোটে, লাট্টু ঘোরে
বনবনিয়ে তালুর ওপর খাসা ।
ওইখানেতেই বদ্ধ ছোট দোরে
ছোট্টবেলার পাগল ভালোবাসা ।

আপন বাপন গুনতি চলে,
শব্দে কাঁপে বাগান, উঠোন, বাসা !
যোগ দিয়েছে হারিয়ে যাওয়ার দলে
ছোট্টবেলার পাগল ভালোবাসা ।

গুলতি-গুলি – বীর শিকারি,
বৃথাই শুধু পাখির পানে আসা !
ওইখানেতেই করল আমায় আড়ি
ছোট্টবেলার পাগল ভালোবাসা।

কাঠের টেবিল চেয়ার টুলে
খুশির তালে বাজিয়ে চলা তাসা।
ওইখানেতেই হয়তো গেছে ভুলে
ছোট্টবেলার পাগল ভালোবাসা।

আজকে শুধু ঘুমের ঘোরে
বাস্তবতার কঠোর দাবা পাশা।
ওইখানেতেই হয়তো গেছে মরে
ছোট্টবেলার পাগল ভালোবাসা।

ইচ্ছে – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

তুমিও হাঁটো, আমিও হাঁটি,
হাঁটি কিন্তু চলি কি?
গুমরে মরে বাঁচতে থাকি,
মুখ ফুটে তাও বলি কি?

তুমিও হাসো, আমিও হাসি,
হাসার মত ভান করি।
বুকের মাঝে মরুভূমি,
চোখের জলই পান করি।

তুমিও দেখো, আমিও দেখি,
মনের মাঝে দেখিনা।
অনেক কিছু হারিয়ে ফেলে
ভাঙি, কিন্তু বেঁকি না।

তুমিও শোনো, আমিও শুনি,
শুনি, কিন্তু বুঝি না ।
যে অর্থটা খোঁজার ছিল,
সেইটাই তো খুঁজি না।

তুমি আমি আজকে না হয়
এক ছাতাতে দাঁড়াই না !
দুজনেরই দিকে দুজন
একবার হাত বাড়াই না !

একলা আকাশ – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

আকাশ জুড়ে শূন্যতা
আর একটা-দুটো চিল।
একলা মনে জমছে উঠে
স্মৃতির মেহফিল।

আকাশ জুড়ে উদাসী নীল,
বিচিত্র হাতছানি!
বিরান আকাশ ক্লান্ত মনের
বিরল কানাকানি।

আকাশ মাতে সুরের প্রেমে,
সূর্য-তারায় ভরে।
একলা মনের একতারাতে
বিষণ্ণ সুর ঝরে।

আকাশ জুড়ে আলোর নেশা,
তাকিয়ে থাকা দায়!
দুটো চোখে ঝাপসা নামে
মনের কুয়াশায়।

পাহাড় ভাঙলে পরে – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

উপত্যকায় দাঁড়িয়ে ক্রুদ্ধ আমি
আকাশের দিকে মুঠো পাকিয়ে চিৎকার করে উঠি
শাণিত শব্দ বিদ্যুৎ বেগে ছুটে যায়
কিন্তু ঘিরে ধরা উঁচু পাথুরে পাহাড়ে ধাক্কা খায়
প্রতিধ্বনি বারবার ফিরে ফিরে আসে নিজেরই কানে
পাহাড়ের ওপারে আমার চিৎকার থেকে যায় অশ্রুত

হয়তো আরো কোনো উপত্যকায়
এমনই চিৎকার করে চলেছে
আমার কোনো অজ্ঞাত আত্মীয় বা বন্ধু

একদিন পাহাড় ডিঙিয়ে চিৎকারগুলো মিলেমিশেব হয়ে উঠবে –
একটা খোলা আকাশ,
ভোরের নরম রোদ্দুর,
পাখির মিষ্টি গান
আর দুষ্টু নদীর জল

ভাঙা পাহাড়ের ধ্বসে গুঁড়িয়ে যাওয়া
বন্দুক আর কাঁটাতারের টুকরোগুলো
নদীর জলে ভেসে ভেসে
চলে যাবে অদৃশ্য হওয়ার দেশে
চিরতরে l

খুশির বিকেল – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

লক্ষ মানুষ সাগর পারে,
ছুটির বিকেল শেষ।
মনের খুশি বাঁধ ভেঙেছে
সব পেয়েছির দেশ!

শেষ গোধূলির আলো মেখে
জাগছে খুশির বান!
প্রকৃতি আজ দুহাত খুলে
বিলোচ্ছে তার দান।

জগৎ-জোড়া খুশির ছোঁয়া
জমছে সাগরবেলায়,
ঘন্টা কয়েক দুঃখ যত
কোথায় যেন মেলায়।

হাসছে মানুষ, হাসছে বালি,
হাসছে হাজার ঢেউ।
এমন দিনেও মনের কোণে
হয়তো কাঁদে কেউ!

আনমনা কিছু শব্দ – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

শব্দেরা পা-মেশিনের সেলাইয়ের মত চলছে
নিরবচ্ছিন্ন লাগাতার অনর্গল

মোহনাগামী শতধা বিভক্ত নদী
হঠাৎ হঠাৎ ঝোড়ো হাওয়ায় ঝঞ্ঝার বার্তাবাহী ঢেউ
অশান্ত জলে পূর্ণ প্রতিবিম্ব গড়ে ওঠে না

ছেঁড়া কথার কাপড়ে অনর্থক শব্দের বাধ্যতামূলক রিফু
কেউ না বুঝলেও আমি জানি
সবার চোখে ডুবুরির মত খুঁজি ধরে-ফেলার বিদ্রূপ
চিরায়ত এবং স্বাভাবিক – তা জেনেও ভয় হয়
ভয় একটা পুরোনো বদভ্যাস l

দুপুর – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

কাঠঠোকরার শব্দে দুপুর একঘেয়ে
ক্লান্ত মাঝি ছোট্ট ডিঙি যায় বেয়ে
অংক বইয়ের পাতাগুলো হঠাৎ নেই
ইতিহাসের রাজবংশ হারায় খেই!

কাকের বাসায় চতুর কোকিল পাড়ছে ডিম
একলা জগাই করছে ফিরি আইসক্রিম
হালকা কাদায় হাঁটছে কানে একটা কই
দেশ-বিদেশের গণ্ডী ভোলে ভূগোল বই!

ফিঙের নাচে দুলছে একা সজনে ডাল
পুকুর জুড়ে একলা দাশু ফেলছে জাল
কালু কুকুর ছায়ায় শুয়ে লেজ নাড়ায়
ব্যাকরণের সন্ধি-সমাস পথ হারায়!

একটা ফড়িং উড়ছে নেহাত আনমনে
কাচমাছিটা ঘুরছে ঘরের এক কোণে
রসায়নের রসের ধারায় ঘাটতি বেশ
বাইরে থেকে হাতছানি দেয় খুশির দেশ!

Natun Bangla Kobita Lekha

পথিক – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

হাওয়ায় গরমের কুচি ছুটে আসছে
সজোরে বিঁধে যাচ্ছে দেহের খোলা অংশে
আপাদমস্তক ঢাকার মাঝে
দুটো চোখ আছে শুধু জেগে
গরমে জ্বলে যাচ্ছে চোখ দুটো
তবু দেখা তো ওদের কাজ

হাত-পা দেহ সব অদৃশ্য, নিয়ন্ত্রিত, অকেজো
শুধু বিশাল একটা ছায়া পায়ে পায়ে অনুসরণ করছে
তাকে ওই চোখদুটোও দেখতে পাচ্ছে না
অসহায় চোখদুটো ঝলসে যাওয়ার দিন গুনছে
সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে
ছায়া ক্রমেই বড়ো থেকে আরো বড়ো
গরম হাওয়া আর দীর্ঘ ছায়ার মাঝে হেঁটে চলেছে
একটা মাঝারি অবয়ব

বিধ্বস্ত একাকীত্বকে সঙ্গী করে
অনন্ত সময়ে হেঁটে চলেছে
একদলা সহ্যশক্তি l

হয়তো কোথাও – মিলন কুমার মুখার্জি [Natun Bangla Kobita Lekha]

সূর্য ডোবে পাইন বনের পিছে,
বরফমাথা পাহাড় জুড়ে ফাগ ।
টুকরো মেঘের আলতো আঁচড় দাগ ।
ছিন্ন তারার পেলব অনুরাগ ।
আবিলতা ফেলে আসা নীচে ।

সন্ধ্যা নামে বাঁকা নখের চাঁদে ।
আঁধার-নামা ক্লান্ত নদীর বাঁক ।
নিপুণ ছাঁদে ওড়া বকের ঝাঁক ।
সন্ধ্যাতারা স্বতন্ত্র নির্বাক ।
হয়তো কোথাও একাকী মন কাঁদে।

বই আর ঝাণ্ডা – মিলন কুমার মুখার্জি

দেশ থাকবে লোকের হাতে, কানুনেতে লিখছে তাই ।
জাবদা কেতাব বলছে, দেশে সবাই সবার আপন ভাই ।

আমরা নাকি সবাই সমান, যতই কেন ভিন্ন হই ।
একের সাথে আনে জোড়া, কেউই তো বিচ্ছিন্ন নই ।

বই বলেছে, আমরা নাকি মুক্ত যেন পাখির ঝাঁক ।
কেতাবেতেই মুখ ঢেকেছে মুক্ত হওয়ার চিচিং ফাঁক ।

শোষণ পীড়ন চালিয়ে যাবে, সাধ্য এমন নেই কারো ।
মোটা কেতাব থাকলে শিরে তুমিই বা কার ধার ধারো!

ধর্ম এবং সংস্কৃতি – নিজের রুচিই শেষ কথা ।
মোটা বইয়ে এ ব্যাপারে বিলকুল নেই সমঝোতা ।

শিক্ষা নেয়ার অধিকারে বই দিয়েছে বেজায় সায় ।
কে জানে আজ এসব কথায় আসছে কেন অন্তরায়!

বইয়ের কথাই শেষ কথা – মানলো যেদিন তামাম দেশ,
সেই দিনটা আজকে বয়ে আনছে দেখো কী সন্দেশ!

ভাইয়ে ভাইয়ে রক্তহোলির হুজুগ ওঠায় এক দলে ।
মাতিয়ে রাখে ধর্ম-জাতের আত্মঘাতী কোন্দলে ।

কী পরবে আর খাবেই কিবা – আদেশ চালায় দু-একজন ।
মাথার ঘামে পা ভিজিয়ে বাঁচার জন্যে উপার্জন!

বললে কথা উল্টো সুরে দুঃখ আছে ভীষণ আজ!
সারা দেশে একই তালে বাজছে লয়ের পাখোয়াজ ।

তবু ভারী আমোদ হল ছুটির দিনের আবডালে ।
গাঁয়ের ছেলে ঝাণ্ডা বাঁধে মরা গাছের মগডালে ।

স্বপ্ন মৃত্যু – মিলন কুমার মুখার্জি

আমার চোখে স্বপ্ন ছিল
সাদা কালোর রঙে ।
এগিয়ে যেত স্বপ্ন আমার
স্বপ্নপেলব ঢঙে ।
আমার স্বপ্নে একটুকু রঙ
ছুঁইয়ে নাহয় দিতে
স্বপ্ন হতো মহীরুহ
ইট পাথরের ভিতে ।
স্বপ্ন সবুজ পাতার ফাঁকে
স্বপ্ন রঙীন ফুল,
স্বপ্ন নায়ের অবাধ গতি,
হারিয়ে যেত কূল ।
স্বপ্ন গড়ার অসীম আশার
মৃত্যু হল ভ্রূণে ।
কালের চাকায় স্বপ্ন ঘোরে
প্রহর গুনে গুনে ।

চারটে ধানের শীষ – মিলন কুমার মুখার্জি

চাকার নীচে পিষে গেল চারটে ধানের শীষ ।
নগ্ন রাজার মাথায় সাজে উৎকট উষ্ণীষ ।
উদম নাচে লিপ্ত রাজা, জল্লাদে গায় গান ।
কোণে কোণে আছড়ে পড়ে মৃত্যুর ফরমান ।
মৃত্যুভয়ে স্তব্ধ গলায় ভয়ের ভীষণ চাপ!
চাপের মাঝেও যায়না চাপা হারানোর সন্তাপ ।
বাগ না মানা রাজার হাসি বন্যার জল প্রায় ।
খুশির ঘরে পাগল রাজা নিজেই অসহায় ।
লাগছে আগুন, ঝড়ো হাওয়ায় ছড়ায় দিগ্বিদিক ।
স্তাবক ঘেরা পাগল রাজা তাকায় নির্নিমিখ ।
রাজার সাথে পাল্লা দিয়ে অগ্নিশিখা নাচে ।
নগ্ন রাজা মগ্ন তখন আত্মসুখের কাছে ।
ধানের তুষে পুষে রাখা আগুন বড় বিষ!
চাকার নীচে পিষেছিল চারটে ধানের শীষ ।

গহন – মিলন কুমার মুখার্জি

তারার দলে গণিত শেখে উল্কাপাতের দাগে ।
অখন্ড রাত নিঝুম হয়ে আমার সাথে জাগে ।
অস্থিরতার ক্লান্ত শরীর এলায় কোনো কোণে ।
মদির হাওয়া চাঁদের বুড়ির গল্পগাছা শোনে ।
ঝোপড়া ঝোপের ঝুপসি কালো ভয়ের মতো বাড়ে ।
রাতের জীবন ছলকে ওঠে ভীষণ চুপিসারে ।
ঘন আঁধার জমাট বাঁধে বুকের অতল খাদে ।
দূরে কোথাও কাজল চোখে হয়ত বা কেউ কাঁদে ।

মিলন কুমার মুখার্জি | Milan Kumar Mukherjee

Valentine Day Speciality | ভালোবাসা দিবস | Top New Bengali Article 2023

Prem Sadhanar Nayika | প্রেম সাধনার নায়িকা : নানা আঙ্গিকে | New Article 2023

Shikhar Chera Jiban | শিকড় ছেঁড়া জীবন | New Article 2023

Pralambasura badha besha of Jagannath | প্রলম্বাসুর বধ বেশ | অভিজিৎ পাল

হয়তো কোথাও | বই আর ঝাণ্ডা | স্বপ্ন মৃত্যু | চারটে ধানের শীষ | গহন | কবিতাগুচ্ছ | বাংলা কবিতা | সেরা বাংলা কবিতা ২০২৩ | কবিতাসমগ্র ২০২৩ | বাংলার লেখক | কবি ও কবিতা | শব্দদ্বীপের কবি | শব্দদ্বীপের লেখক | শব্দদ্বীপ | বাংলা ম্যাগাজিন | ম্যাগাজিন পত্রিকা | শব্দদ্বীপ ম্যাগাজিন | হয়ত কোথাও তোকে খুজে পাব | স্বপ্ন মৃত্যু ভালোবাসা | নিজের মৃত্যুর স্বপ্ন | স্বপ্ন মৃত্যু ভালোবাসা | ধানের শীষ | গহন সমার্থক শব্দ | গহন কুসুম কুঞ্জ মাঝে | মনের গহনে | গহীন অর্থ

poem about self love | story poem | poetry angel | narrative poetry examples | poetry reading near me | prose poetry examples | elegy poem | poetry reading | the tradition jericho brown | poetry websites | protest poetry | prayer poem | emotional poetry | spoken word poetry | poem about god | percy shelley poems | jane hirshfield | spiritual poems | graveyard poets | chapbook | poems about life | poems to read | found poem examples | poems about life and love | Sabuj Basinda | High Challenger | Bengali Poetry | Bangla kobita | Kabitaguccha 2022 | Poetry Collection | Book Fair 2022 | bengali poetry | bengali poetry books | bengali poetry books pdf | bengali poetry on love | bangla kobita | poetry collection books | poetry collections for beginners | poetry collection online | poetry collection in urdu | poetry collection submissions | poetry collection clothing | new poetry | new poetry 2022 | new poetry in hindi | new poetry in english | new poetry books | new poetry sad | new poems | new poems in english | new poems in hindi | new poems rilke | new poems in urdu | bangla poets | indian poetry | indian poetry in english | indian poetry in urdu | indian poems | indian poems about life | indian poems about love | indian poems about death

Leave a Comment

Seraphinite AcceleratorOptimized by Seraphinite Accelerator
Turns on site high speed to be attractive for people and search engines.