Natun Bangla Kobita Lekha | কবিতাগুচ্ছ | তালাল উদ্দিন | 2023

Sharing Is Caring:
Natun Bangla Kobita Lekha

কবিতার এক লাইন – তালাল উদ্দিন [Natun Bangla Kobita Lekha]

১.

দেওয়ালে ঝুলানো ফ্রেমে বন্দী
সম্মাননা পত্রগুলোর দিকে অপলক তাকাই
শোকেসে রাখা অ্যাওয়ার্ডগুলো
চোখে অশ্রু এনে দেয়
না না, নোবেল পুরস্কারের কথা
এখানে আমি বলতে পারিনা
না না, অত বড় অতটা বড় কবি আমি নই।
শুধু জানি একটু রাজনীতি সচেতন না হলে
বা ইন্টারনেটে ভাইরাল না হলে
আজকাল লোকে গবেষণা করে
আর মহারথী খুঁজে না।
মনে পড়ে,
স্মৃতির আগারে ঢুকে
প্রতিদিন হাতড়ে বেড়াতাম
নিশুতির মত
যদি পেয়ে যাই কোন এক কাব্যদেবী
যিনি আমায় দান করবেন
হাজার হাজার অমর কবিতা
আর আমি হয়ে যাব এক অমর কবি।
আমি পেয়েছিলাম কি না জানি না
সে তো আপনারাই বলবেন
শুধু এসব মনে করলেই হাসি ধরে
আমার পাগল থাকার সেসব দিনগুলো
কেটে গেল অভিমানে
যেখানে আশার হয় সলিল সমাধি।।

২.

কবিতার কোন এক লাইন
অনেকটা জুয়া খেলার মতন
ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলে
আর নেশা ভর করলে
হাজার দান খেলার পরে
পেয়ে যেতে পারেন এক দান
কিন্তু নিন্দুকেরা বলবে
এ আর এমন কি
খাতা কলম এনে দেন
আমরা ও এরকম দু’চার লাইন
লিখে দিতে পারি।

কবিতার কোন এক লাইন
টাইটানিকের ঐ
মৃত্যুপথযাত্রী মানুষটার মতন
যে মৃত্যু-দুয়ারে বসে
বেহালায় রাগ তুলে
আর জীবনের শেষ রস
আস্বাদন করতে চায়।
কিন্তু নিন্দুকেরা বলবে
মৃত্যু অমোঘ নিয়তি
এ আর আশ্চর্য কী
তার শেষ লাইন আর
স্বীকৃতি পায় না।।

৩.

কাব্যের এ নিঠুর খেলায়
খেলাই মুখ্য
খেলোয়াড় কোথায় যায়
কেউ মনে রাখে না।
দিনমণি অস্ত যায়
নিশি এসে করে অন্ধকার
জগতের এ কাব্য-ঘরে
হরেক রকম দর্শনের হয় সমাহার
তার মর্ম বুঝা বড় দায়।।

মন মন্দিরে – তালাল উদ্দিন [Natun Bangla Kobita Lekha]

১.

মহাসাগরে নাও ভাসালাম
পড়ল সেটা ঝড়ে
কেমনে পৌঁছাব
তোমার মন মন্দিরে,
বিধি, দয়া করো মোরে
বিধি, তরাও আমারে
এ বিদ্যে বোঝাই নৌকা আমার
ডুববে অতলে।
বিধি, দয়া করো মোরে
বিধি, ক্ষমা করো মোরে
তীর হারা এ তরী আমার
কে ভিড়াবে তীরে?

২.

জীবন খাতায় হিসেব করি
দেখি, ষোল আনাই ফাঁকি
এত তত্ত্ব দর্শন শিখে
লাভ হল আর কি
বিধি, দয়া করো মোরে
বিধি, দেখা দাও মোরে
আশেক মাসুক দর্শন পেতে
বস্তু লাগে নারে।
বিধি, দয়া করো মোরে
বিধি, ক্ষমা করো মোরে
আমার এ সোনার তরী
ভিড়াও বন্দরে।।

৩.

তোমার মন মন্দিরে
ধ্যানে বসে
কুদরতী দু’পা ছুঁয়ে
হাসিল করব বাতেনী এলেম,
তুমি যারে আশিস করো
তার জীবন ধন্য হয়
এ মনেতে বিশ্ব জায়গা লয়
বন্ধু, পরম সত্য তখন দর্শন হয়।
বিধি, দয়া করো মোরে
বিধি, ক্ষমা করো মোরে
এ অধমে দেখা দাও
মন মন্দিরে।।

Separe Aude – তালাল উদ্দিন [Natun Bangla Kobita Lekha]

১.

স্বপ্ন চূড়ার ডাল বেয়ে বেয়ে
কখন ওঠব ঐ নীলাকাশে
কখন মেলব ডানা পাখির মত
স্বপ্নের হলাহলে লীন হয়ে
Aude separe
Aude separe
Aude separe, re.

২.

জীবন যেন স্বপ্ন হয়ে যায়
আর স্বপ্ন যেন জীবন হয়ে যায়
সে স্বপ্নটা ধীরে ধীরে দেখে যাব
যেখানে আলোর হয় নব বরণ,
মন উচাটন
শব্দহীনার মতন
হারায় দূর বহুদূরে
Aude separe,
Aude separe
Aude separe, re.

৩.

রয়েছে কত কিছু অজানা
প্রকৃতি ও মানুষের ঘটনা
মাটি ফুঁড়ে চলে যাব অতলে
দেখব জীবনের যন্ত্রণা,
মন উচাটন
খুঁজে ফিরে সে কারণ
হারায় দূর বহুদূরে
Aude separe,
Aude separe
Aude separe, re.

৪.

ঈগলের মত ডানা হাজারটা
জানব সত্য ও সুন্দরটা
এ-ফোঁড় ও-ফোঁড় করে
চলে যাব বহুদূরে
আনব স্বর্গের ঠিকানা,
মন উচাটন
ভালবাসা সে কারণ
হারিয়েছে দূর বহুদূরে
Aude separe,
Aude separe
Aude separe, re.

Separe Aude:
Separe Aude is the Latin phrase meaning “Dare to know”; and also is loosely translated as “Have courage to use your own reason”, “Dare to know things through reason”, or even more loosely as “Dare to be wise”.

গীতমালা [Natun Bangla Kobita Lekha]

নিত্য পথ

রঘুনাথ মহাপ্রভুকে দর্শন করতে চান, তার স্নেহান্ধ বাবা মা তাকে প্রতিবার বাধা দেয়। গোবর্ধন দাস পুত্র সম্বন্ধে তার স্ত্রীকে বলেছিল-
“ইন্দ্রসম ঐশ্বর্য, স্ত্রী অপ্সরা-সম।
এ সব বান্ধিতে নারিলেক যাঁর মন ।।
দড়ির বন্ধনে তাঁকে রাখিবা কেমতে?
চৈতন্যচন্দ্রের কৃপা হঞাছে ইঁহারে।
চৈতন্যচন্দ্রের ‘বাতুল’ কে রাখিতে পারে?”
(চৈঃ চঃ অন্ত্যঃ ৬/৩৯-৪১)

আংখী মুঞ্জিয়া দেখ রূপরে, আংখী মুঞ্জিয়া দেখ রূপ
দীলের চক্ষে চাইয়া দেখ বন্ধুয়ার স্বরূপ॥

— হাছন রাজা

১.

চাঁদের মত নৃত্য করি
নিত্য পথে হয় গমন,
নিত্য পথে হবে দরশন
শোন বন্ধুগণ
চাঁদের মত বিলাব কিরণ।।

২.

মহাজন রিক্ত হলে
নিত্য পথে গমন করে
রাধের কোলে মাথা রেখে
হৃদয় করে সমর্পণ
নিত্য পথে হবে দরশন
শোন্ বন্ধুগণ
চাঁদের মতো বিলাব কিরণ।।

৩.

সানাই বাজে ত্রিভুবনে
নিশি রাইতে খবর মেলে
সব সখীগণ জড়ো হবে
ঘটবে বিরাট আয়োজন,
নিত্য পথে হবে দরশন
শোন বন্ধুগণ
চাঁদের মত বিলাব কিরণ।।

৪.

মহা আত্মা হাজির হবে
সব পর্দা ফেটে যাবে,
সবকিছু সাঙ্গা হবে
নিঃস্ব হওয়া প্রয়োজন,
নিত্য পথে হবে দরশন
শোন বন্ধু গণ
চাঁদের মত বিলাব কিরণ।।

৫.

সাধনাটা পড়ে রয়
আশেক-মাসুক মিলন হয়
সব আকাঙ্ক্ষা মিটে যাবে
ঘটবে নতুন পরিচয়
নিত্য পথে হবে দরশন
শোন বন্ধু গণ
চাঁদের মত বিলাব কিরণ।।

নামাজ

পড়গে নামাজ জেনে শুনে
নিয়ত বাঁধগা মানুষ মক্কাপানে
মানুষে মনস্কামনা
সিদ্ধি কর বর্তমানে
খেলছে খেলা বিনোদ কালা
এই মানুষের তন ভুবনে।।

— ফকির লালন শাহ

১.

নামাজ পড়িস জেনে শুনে
খোদার ঐ আশিস পেতে
নামাজের ‘রিয়া’
তুই করিস না করিস না
মানুষের জন্য নামাজ পড়িস না।।

২.

সিজদাহ্ দে এমন স্থানে
শয়তান দেয়নি যাতে
দিব্য চোখে দেখবি রে তুই
নামাজ কবুল হয়েছে।
নামাজ পড়িস জেনে শুনে
খোদার ঐ আশিস পেতে
নামাজের ‘রিয়া’
তুই করিস না করিস না
মানুষের জন্য নামাজ পড়িস না।।

৩.

সুন্নতের পাবন্দি কর
খুশু ও খুযুর সাথে
রুকু কর সিজদাহ্ কর
দেখবি্রে তুই দিব্য চোখে
আরশের আলো লেগেছে
আরশের আলো লেগেছে।

নামাজ পড়িস জেনে শুনে
খোদার ঐ আশিস পেতে
নামাজের ‘রিয়া’
তুই করিস না করিস না
মানুষের জন্য
নামাজ পড়িস না।।

আমি গাই তুমি বড় সুন্দর

অলৌকিক আনন্দের ভার, বিধাতা যাহারে দেন, তার বক্ষে বেদনা অপার।
— রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

১.

সাধনায় ঢুকছি মনে
ফিরাইয়া দিও না মোরে
পিরীতি পিরীতি বলে
কাটিলো জীবন
আমি গাই তুমি বড় সুন্দর।

২.

কতদিন গেছে চলে
তোমারি পথ চেয়ে
আগুনে পোড়ালে মোরে
তবু বলি সুন্দর
সাধনায় অবিচল
যেন এক বিন্ধ্যাচল
তোমারে পেতে চাই
মনের ভেতর
আমি গাই তুমি বড় সুন্দর।

৩.

হাজার হাজার শুকতারা
দিতেছে যে ইশারা
দূরবীন হয়েছে নয়ন
তোমারে দেখি এখন
এ যেন তোমারি দান
করি আমি প্রাণপাত
তোমারে পেতে চাই
মনের ভেতর
আমি গাই তুমি বড় সুন্দর।।

মরিলে পিরীতি বাড়ে

— সেদিন অনেক চেহারা উজ্জ্বল হবে’। ‘তারা তাদের প্রতিপালকের দিকে তাকিয়ে থাকবে’ (ক্বিয়ামাহ ৭৫/২২-২৩)।

১.

মরিলে পিরীতি বাড়ে
মরার কী গুণ বন্ধুরে
মরণ হল সে পিরীতির শুরু
শোন বন্ধুগণ
মরণ হলো প্রার্থনারই গুরু,
আপনারে না চিনিয়া
ভুল পথে গড়ি জীবন
মরণ হল সে জীবনের মরণ
শোন্ বন্ধুগণ
মরণ হল আজব জাদুকর।।

২.

মন রাজ্যে মন পাখি
সারাজীবন উপোস রাখি
দুধ-কলা দিলাম দেহ পিঞ্জরে
দেহ শুধু হল পূরণ
মন সাধন হল না
করি তাই অপার ভাবনা
শোন্ বন্ধুগণ
পিরীতির কি এমন নমুনা?

৩.

নফসের মোহে পড়ে
কত পাপ করেছি
আত্মাকে ধুয়ে মুছে
কোন আমল করিনি
বৃথা হল জীবন ধারণ
মরণ সুখের হবে কি?
করি তাই অপার ভাবনা
শোন্ বন্ধুগণ
পিরীতির কি এমন নমুনা?

রাধে

“গোলোকে, তুমি কৃষ্ণের কাছে প্রাণের চেয়েও প্রিয় দেবী, তাঁর নিজের রাধিকা।
বৃন্দা বনের গভীরে, তুমি মন্ত্রমুগ্ধ রাস নৃত্যের উপপত্নী।”

— শ্রী দৈবকৃত লক্ষ্মী স্তোত্র

১.

কায়া দেখতে যাই
রাধে বড় গুরুজন
শাওনের বরষায়
দিবেন গো দরশন
মন মহুয়ার দেশে
বিরাট আয়োজন
সোনা দিয়া পরাণখানি
বান্ধিলো রে।।

২.

পথের পানে চাই শুধু
চরণ ধূলি খুঁজি
চরণ ধুলো পেলে আমি
স্বর্ণ দিয়ে মুড়ি
আঁকুপাঁকু করে মন
কবে পাব দরশন
মনের আকাশে
দেখি চাঁদ উঠিলো।।

৩.

প্রেম সাগরে ডুব দিয়ে যাই
হাজার লীলা দেখি
মহাত্মায় বিলীন হলে
তোমার মর্ম বুঝি,
ভক্তি ভরা এ মন
যাচে শুধু দরশন
প্রেম সাগরে দেখি
আজ ঝড় উঠিলো।।

তালাল উদ্দিন | Talal Uddin

Bengali Article 2023 | “স্তন কর” বিরোধী নারী আন্দোলন ও নাঙ্গেলির (Nangeli) আত্মত্যাগ

Bengali Article 2023 | শ্রমিক আন্দোলনে সুভাষচন্দ্র বসু | প্রবন্ধ ২০২৩

Bengali Article 2023 | চিরায়ত ধর্মমঙ্গলের স্বাতন্ত্র্য | প্রবন্ধ ২০২৩

Bengali Article 2023 | দুর্গা পূজার কথকতা | প্রবন্ধ ২০২৩

গীতমালা | নিত্য পথ | নামাজ | আমি গাই তুমি বড় সুন্দর | মরিলে পিরীতি বাড়ে | রাধে | রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর | ফকির লালন শাহ | হাছন রাজা | শ্রী দৈবকৃত লক্ষ্মী স্তোত্র | গীতমালা আৰু পৰমগীত | সুখের আসাই নিত্য পথ চলা | নামাজের নিয়মাবলী | নামাজ শিক্ষা | নামাজের ইতিহাস | নামাজ সম্পর্কে ঘটনা | নামাজ পড়ার ছবি | নামাজ না পড়ার শাস্তি | নামাজ ফরজ হওয়ার দলিল | নামাজের নিয়ম | নামাজ কি | পাঁচ ওয়াক্তের নামাজ শিক্ষা | বরকতের নামাজ আওয়াবিন | নামাজের সময় কিছু সাধারণ ভুল | রাধে রাধে | জয় রাধে, জয় কৃষ্ণ | ময়না বলো তুমি কৃষ্ণ রাধে | কবিতাগুচ্ছ | বাংলা কবিতা | সেরা বাংলা কবিতা ২০২৩ | কবিতাসমগ্র ২০২৩ | বাংলার লেখক | কবি ও কবিতা | শব্দদ্বীপের কবি | শব্দদ্বীপের লেখক | শব্দদ্বীপ | বাংলা ম্যাগাজিন | ম্যাগাজিন পত্রিকা | শব্দদ্বীপ ম্যাগাজিন

Binaca Geetmala | Ameen Sayani’s Geetmala | Nitya Path | Radhe (2021 film) | Radhe Krishna Radhe Radhe Song | O Radhe Tomay Bare Bare Lyrics | O Radhe Radhe Lyrics | Natun Bangla Kobita Lekha | Natun Bangla Kobita Lekha – Talal Uddin | Natun Bangla Kobita Lekha 2023 | 2023 Natun Bangla Kobita Lekha | Natun Bangla Kobita Lekha sekha | Sabuj Basinda | High Challenger | Shabdodweep – Natun Bangla Kobita Lekha

Leave a Comment