Thursday, February 3, 2022

কবি বা লেখকের পূর্বে একজন পাঠক হওয়া খুবই প্রয়োজন [নিবন্ধ | Article]

কবি বা লেখকের পূর্বে একজন পাঠক হওয়া খুবই প্রয়োজন

- রূপশঙ্কর আচার্য্য


"পাঠক" বলতে যে কোনো বিষয় (শাস্ত্র, গ্রন্থ, পুরাণ, কাব্য) পাঠকারী ব্যক্তিকে বোঝায়। কোনো কোনো পন্ডিত ব্যক্তি বলেন "পাঠক" যিনি কোনো ধর্মগ্রন্থকে পাঠ করেন বা স্তবকমালাকে পাঠ করে থাকেন, বিদ্যার্থী, পাঠক তাদেরকেই বলা হয়। আবার কিছু কিছু পণ্ডিতগণ আবৃত্তিকারকেও পাঠক বলে স্বীকার করেছেন। যাই হোক, এইটুকু আমরা উপলব্ধি করতে পারলাম যে, পাঠক বলতে যিনি কোনো বিষয়ের উপর গুরুত্ব দিয়ে গভীরভাবে মনোযোগ সহকারে সেই বিষয়টিকে পাঠ করেন এবং তার অর্থ অনুধাবন করার চেষ্টা করেন।

যে বিষয়টি আমরা পাঠ করি সেই বিষয়টি যার দ্বারা রচিত ঠিক তিনি তাঁর নিজস্ব ভাবনা যা নিজস্ব মনোজগতের মাধ্যমে সৃষ্টি সেই সৃষ্টিকে অতি অবশ্যই উপলব্ধি করতে হবে পাঠককে। শুধু পাঠ করলেই বা পড়লেই হবে না, কোনো গ্রন্থাকার বা লেখক, সাহিত্যিক, কবি তাঁদের মনের যে ভাবনাকে লেখনীর মাধ্যমে তুলে ধরেন তা ঠিক কোন অর্থে তুলে ধরেছেন এই সঠিক অর্থ যদি অন্বেষণ করতে না পারেন পাঠক তাহলে তার পঠন পাঠনের কোনো মূল্য থাকে না।

"পাঠক" শব্দটি অতিরিক্ত ব্যাপক একটি শব্দ, অর্থাৎ যিনি পাঠক, তিনি যে শুধু পড়ুয়া ব্যক্তি তা নয়। পাঠক ও পড়ুয়া ব্যক্তির মধ্যে সূক্ষ্ম পার্থক্য রয়েছে, যারা পড়ুয়া, যারা শিক্ষার্থী তাদের সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়বস্তু থাকে। কিছু পাঠ্যসূচি থাকে, তার উপর ভিত্তি করেই তারা পঠন পাঠনে মনোযোগী হয়, তাই তারা পড়ুয়া সেই অর্থে বা শিক্ষার্থী। কিন্তু "পাঠক" বলতে যেমন পড়ুয়াকে বোঝায়, নির্দিষ্ট কিছু বিষয়বস্তু পাঠ বোঝায়, তার বাইরে আরও অতিরিক্ত বহু বিষয় পাঠ করার যোগ্যতা তাদের থাকে। তাই "পাঠক" শব্দটি এই অর্থে অতিরিক্ত ব্যাপক তা আমরা বুঝতে পারি।

আমি কবি হব বা আমি সাহিত্যিক হব বা লেখক হব এই চিন্তা-ভাবনা করা যে ভুল তা নয়। আমরা এ চিন্তা-ভাবনা করেও এটুকু উপলব্ধি করা উচিত আমাদের যে কবি, লেখক, সাহিত্যিক হওয়ার আগে একজন মানুষকে অতি অবশ্যই পাঠক হতে হবে। পাঠকের মধ্য দিয়ে আমরা বহু অজানা বিষয়কে জানতে সক্ষম হই। শুধু তাই নয়, যেমন অজানা বিষয় জানতে পারি, বহু তথ্য সংগ্রহ করতে পারি, স্মৃতিতে সঞ্চিত করে রাখতে পারি, নিজের মনের মধ্যে নতুন নতুন ভাবনা সৃষ্টি করার ক্ষমতাও আমাদের থাকে, অর্থাৎ বিভিন্ন বিষয়ে পাঠের মধ্য দিয়ে আমরা শিক্ষা অর্জন করে থাকি।

শুধু তাই নয়, আমাদের মনের মধ্যে মারাত্মক একটা অনুপ্রেরণা জেগে ওঠে কলমের মাধ্যমে, লেখনীর মাধ্যমে  নতুন কিছু সৃষ্টি করার। এই নতুন কিছু সৃষ্টির জন্য পাঠকের বিভিন্ন গ্রন্থ,বিভিন্ন বিষয় অবশ্যই পাঠ করা উচিত। আমরা যদি শ্রদ্ধেয় রবীন্দ্রনাথকে, শরৎচন্দ্রকে, নজরুলকে বা বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়কে এমনকি বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়কে আরও অনেক কবি রয়েছেন যেমন- সুকান্ত ভট্টাচার্য্য, জীবনানন্দ দাশ, সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত, দ্বিজেন্দ্র রায় এই সমস্ত কবিদের মনের ভাবকে পাঠের মাধ্যমে আমরা যদি জানতে পারি, উপলব্ধি করতে পারি। নিজেদের শিক্ষার মাধ্যমে এই সমস্ত মহান পুরুষ, মহান কবির মানসিক ভাবনাকে রপ্ত করতে পারি, তবেই আমরা নতুন কিছু সৃষ্টি করার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারব। শুধু তাই নয়, আমরা বিভিন্ন দর্শনশাস্ত্র, মনোবিদ্যা, রাষ্ট্রদর্শন, সমাজতত্ত্ব, ভূতত্ত্ব, গণিতশাস্ত্র আরও অনেক বহু বহু বিষয় ধীরে ধীরে পাঠের মাধ্যমে অর্জন করতে পারি।বিভিন্ন বিষয়ে আমাদের অভিজ্ঞতা হয়ে থাকে।

সুতরাং একজন লেখক, কবি বা সাহিত্যিক হওয়ার পূর্বে প্রত্যেকটি সুশিক্ষিত মানুষকে অবশ্যই একজন মহান পাঠক হওয়া বাঞ্চনীয়। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন লেখার বিভিন্ন অর্থ বিশ্লেষণ করে সেই লেখাগুলির মধ্যে আরও নতুন অলংকার ভাষা সংযোজন করা যায় কিনা, সেই ভাবনাও পাঠের মধ্য থেকে আসে।অর্থাৎ মন্তব্যও পাঠকের মধ্যে অভিজ্ঞতার একটি স্তম্ভ তৈরি করে।

আমরা উপলব্ধি করেছি, একজন মহান দার্শনিক দর্শন তত্ত্ব ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেছেন, যিনি সমালোচনা করেন, তিনি একজন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দার্শনিক। তবে এই সমালোচনা যেন যার সম্বন্ধে করা হচ্ছে বা যার লেখার উপর করা হচ্ছে, যার লেখার মধ্যে করা হচ্ছে, সেই ব্যক্তিকে লিখতে অনুপ্রেরণা জোগায়, লেখা থেকে বিরত না হতে হয় যেন তাকে।

এমনভাবে সমালোচনা করা হোক, লেখক বা কবি বা দার্শনিক যেন তার নতুন সৃষ্টিগুলিকে আবার পুনরায় বিচার বিবেচনা করে ত্রুটিগুলো উপলব্ধি করতে পারেন এবং সংশোধন করতে পারেন।আরও ভালো করে, নতুনভাবে নিজেকে সৃষ্টি করতে পারেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই অবশ্যই একজন মন্তব্যকারী, একজন সমালোচক, একজন সাহিত্যিক বা কবিকে সম্পূর্ণতা দেওয়ার প্রচেষ্টা রাখে, তাই অতি অবশ্যই আমি পাঠক হওয়ার প্রচেষ্টা রাখব। একজন পাঠকই পারে নিজেকে নতুন করে সাহিত্যিক রূপে পরিণত করতে।


নিবন্ধ | কবি | লেখক | পাঠক | বইমেলা | সাহিত্যিক | কবি বা লেখকের পূর্বে একজন পাঠক হওয়া খুবই প্রয়োজন | Article


রূপশঙ্কর আচার্য্য | Rupsankar Acharya







1 comment: