Thursday, December 16, 2021

এক পেয়ালা ও রূপান্তর সঙ্গম - নিমাই জানা [ছবি দেখে লেখা - পর্ব ৬]

এক পেয়ালা ও রূপান্তর সঙ্গম

- নিমাই জানা


কোন কোন সকালের সমাঙ্গদেহে একটি সমযোজী পালক থাকে 
দীর্ঘকায় ছায়াপথের সব মেরু ফসিল ভেঙে ভেঙে পড়ে ফেলি পৃথিবীর মেটামরফোসিস বানান দিয়ে,
মৃতপ্রায় অঙ্গুরীমালের সাদা পালক আর কিছু নয় একটি অন্তিম গন্তব্যের ছায়াপথ, 
রূপান্তরিত শিলার মতো কৌতূহলী পেয়ালা

জনপদ নিরাকার হয়ে দাঁড়িয়ে থাকে আমার দীর্ঘকায় হিমাঙ্গে অস্থি বিহীন শ্বাপদের মতো 
সবাই মন্বন্তরের খোলস বের করে গোলাপি শাড়ির ব্রততী ছায়ায় 
সীমান্তের শীতকাল এঁকে রাখি কোন হিমোফিলিক রাত একা একা নিজেকেই হত্যা করে চলে

রক্তিম পেয়ালাটি পুরানের নেমসেকের গন্ধে বিভাজিত
ভেতরে ভেতরে আমাদের তখন অযৌন কালের দ্রোহ
পুরুষেরা পরকীয়ার পালক ফেলে 
পরিচ্ছন্ন ডিসাকশন টেবিলে রক্ত তঞ্চন ছেড়ে নেমে আসে অহল্যার প্রাচীন দেহপথ
আমি উলঙ্গ প্রথম পুরুষের রূপান্তরিত দীর্ঘ কবিতা লিখে ফেলি

জলজ পৃষ্ঠার অক্ষর দিয়ে আমি আমৃত্যু উপত্যকা ভেঙে কৃত্রিম গহনা খুলে ফেলি অমৃতাক্ষর ছন্দে
অযোগবাহের পরিযায়ী বিষধর বাষ্পগুলো আমাকে হত্যা করে খুব ভোরের বেলায়, 
আমাদের তখন অবনতি কোণ ধরে রাতের শিস দেওয়া পাখি মিলিয়ে যায় ক্যামফায়ার ওমে

গণিতের কাম্য শিখন সামর্থ্য শিখছি নিশাচর

No comments:

Post a Comment