Monday, December 27, 2021

পুরোনো বই - গৌতম তালুকদার [ছবি দেখে লেখা - পর্ব ১৭]

পুরোনো বই

- গৌতম তালুকদার


সন্দীপ অফিস থেকে এক সপ্তাহের ছুটি নিয়েছে কারণ একটাই অনেক দিন হয়ে গেলো ঘরটায় যে সেখানে ঝুল পরে আছে,ঠিক করে বই-খাতা এমন কি নিত্য ব্যাবহারের জিনিষ পত্র গুছিয়ে রাখার সময় টুকু পায়নি।কি করবে চাকরীর সুবাদে কোলকাতার টালা পার্ক অঞ্চলের ঘোষ বাগান লেনের (বস্তি) একটি ঘরে ভাড়া থাকে ব্যাচেলার বলে কেউ ঘর ভাড়া দিতে রাজি হয়নি অনেক ছোটা ছুটির পর অফিস কলিগের এক মামার বাড়িতে একটা রুম এক চিলতে বারান্দা সংগে কমন পায়খানা বাথরুম সহ একটা ঘর ভাড়া নিয়ে প্রায় দুবছর আছে। বাড়ি ওয়ালার কড়া হুকুম বাড়িতে একমাত্র নিজের পরিবারের লোক ছারা অন্য কোনো মানুষ আসতে পারবে না। রাত সারে দশটার পর বাড়ির বাইরে থাকা চলবে না। ঘরে বসে কোনো রকম নেশা করা  চলবে না।অবশ্য কোনো নেশা বা বাইরের তেমন কোনো বন্ধু সন্দীপের নেই। বাড়ি ওয়ালা ওর চলা ফেরা,কথা বার্তা, ব্যাবহারে খুশী হয়ে ওকে থাকতে বলেছেন যত দিন খুশী থাকতে চায়।

সকাল আটটায় ঘর থেকে বেড়িতে যেতে হয় তানা হলে দশটার মধ্যে অফিস অ্যাটেন্ড করতে পারবে না আই টি সেক্টরে কাজ করে ভীষণ করা নিয়ম মেনে ওকে চাকরী ধরে রাখতে হয়েছে ।অফিস থেকে বাড়ি ফিরতে রাত সাতটা থেকে সাড়ে সাতটা হয়ে যায়। নিজের হাতেই রান্না করে খায়।রাতের রান্না খাবারটা পরের দিন সকালে খেয়ে যায়। দুপুরে অফিস ক্যান্টিনে কিছু খেয়ে নেয়।একমাত্র রাত ছাড়া এতটুকুও সময় হয় না। রবিবার ছুটির দিন।ঐ একটা মাত্র দিন যেটা ও বেশীর ভাগ সময় বই পড়ে কাটায়। সাহিত্যের প্রতি ভীষণ আগ্ৰহ।বেশ কিছু দেশী-বিদেশী  লেখকদের লেখা বই ওর সংগ্ৰহে আছে। বিশেষ করে পুরনো দিনের কবিতা, গল্প, উপন্যাস, ওকে ভীষণভাবে টানে। আজ সকাল থেকেই শুরু করেছে ঘরটা ভালো করে গোছা গাছ করতে।ওর কলেজ লাইফের এক বন্ধু আসবে দিল্লী থেকে কোলকাতায় এই প্রথম।চারটে দিন থাকবে।তাই বাড়ি ওয়ালার 
কাছে অনুমতি নিয়ে বন্ধুকে ওর এখানেই উঠতে বলেছে।ঘরে রাখা দুটি কেনা বড় রেডিমেড বুক  সেল্ফ ভরা বই গুলো ঝাড় পোছ করতে করতে বেড়িয়ে আসে কবি প্রেমেন্দ্র মিত্রের কবিতা সমগ্ৰ মনে পরে সন্দীপের সেই দিনটির কথা।জীবনের প্রথম কলেজষ্ট্রিট থেকে এই বইটি, এবং সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় একটি কবিতা বই কিনে এনেছিল।

কয়েক বার প্রমেন্দ্র কবিতা সমগ্ৰটি পড়েছে।আজ আবার সেই পুরনো বইটি সামনে আসতেই পড়ার ইচ্ছে নিয়ে টেবিলের উপর রেখে বাকি কাজ টুকু শেষ করতে শুরু করে। পুরনো বই-এর গন্ধ ওকে আবার বই পড়ার নেশা জাগিয়ে তোলে।

No comments:

Post a Comment