Thursday, December 16, 2021

সম্পাদকীয় - ডিসেম্বর ২য় সংখ্যা - প্রবোধ কুমার মৃধা

শব্দদ্বীপের অতিথি সম্পাদক

অক্টোবর - নভেম্বর - ডিসেম্বর

লেখক - প্রবোধ কুমার মৃধা



শব্দদ্বীপ পরিবারে আমার সহসাথী বন্ধু বর্গ এবং প্রিয় পাঠক/দর্শককুল, ২০২১ খ্রীষ্টাব্দের বিদায়লগ্নে এবং ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ আগমনের প্রাক্কালে সবাইকে জানাই আন্তরিক অভিবাদন। আমাদের সমবেত প্রার্থনা থাকুক করোনা-ক্লিষ্ট ২০২১ এর আতঙ্ক কাটিয়ে ২০২২ আসুক নব ভরসার, নবীন আশার ডালি নিয়ে। আমাদের সুখী পরিবার, শব্দদ্বীপ সাহিত্য সংসার, নতুন নতুন বন্ধু সমাগমে হয়ে উঠুক মুখরিত। শব্দদ্বীপ এগিয়ে চলুক দুর্বার গতিতে।

          সাহিত্য নিয়ে অনেক কথা হয়েছে, আজ ও সেই সাহিত্য দিয়েই সাঙ্গ করবো। দেখা যাচ্ছে, সাধারণের জিনিসকে বিশেষভাবে নিজের করে নিয়ে সেই উপায়েই তাকে পুনশ্চ বিশেষভাবে সাধারণের করে তোলাই সাহিত্যর কাজ।
সাহিত্য শব্দের মধ্যে একটি মিলনের ভাব বিদ্যমান। সে মিলন কেবল ভাবে-ভাবে, ভাষায়-ভাষায় বা গ্ৰন্থে-গ্ৰন্থে মিলন নয়, মানুষের সঙ্গে মানুষের, অতীতের সঙ্গে বর্তমানের, দূরের সঙ্গে নিকটের অন্তরঙ্গ যোগসাধন সাহিত্য ব্যতীত আর কিছুর দ্বারা সম্ভবপর নয়। অধিকন্তু সাহিত্য আমাদেরকে‌ সংঘবদ্ধ করতে সহায়তা করে। যে দেশে সাহিত্যের অভাব, সে দেশের লোক পরস্পর সজীব বন্ধনে সংযুক্ত নয়,তারা পরস্পর বিচ্ছিন্ন।

সাহিত্যের বিভিন্ন শাখা আছে, তবে সেই শাখাসমূহকে প্রকাশ করার মাধ্যম দুটি, একটি গদ্য,অপরটি পদ্য। রাজা রামমোহন রায়‌ই প্রকৃতপক্ষে বঙ্গে গদ্য সাহিত্যের ভূমিপত্তন করেছিলেন। তৎপূর্বে আমাদের সাহিত্য ‌কেবল পদ্যেই বদ্ধ ছিল। আশৈশবকাল আমরা গদ্য বলে আসছি, কিন্তু গদ্যে ভাব প্রকাশ যে কী দুরূহ ব্যাপার তা প্রথম দিকের গদ্যকারদের রচনা দেখলেই বোঝা যায়। পদ্যে প্রত্যেক ছত্রের পর একটা করে নিয়মিত ভাবের ছেদ পাওয়া যায়, কিন্তু গদ্যে একটা পদের সাথে আর একটা পদকে বেঁধে দিতে হয়, মাঝে ফাঁক রাখার জো নেই। ছন্দের একটা অনিবার্য প্রবাহ আছে; সেই প্রবাহের মাঝখানে একবার ফেলে দিতে পারলে কবিতা সহজে নাচতে নাচতে ভেসে চলে, কিন্তু গদ্যে নিজে পথ দেখে পায়ে হেঁটে নিজের ভার সামঞ্জস্য বজায় রেখে চলতে হয়, সে কারণে পদ-ব্রজ বিদ্যাটি রীতিমতো অভ্যস্ত না হলে চাল অত্যন্ত আঁকা-বাঁকা, টলমল এবং এলোমেলো হয়ে যায়। গদ্যের সুপ্রণালীবদ্ধ নিয়মটি আজকাল আমাদের অনেকের অনেকটা সড়গড় হয়ে গেছে, কিন্তু অদূর অতীতে এমনটি ছিল না।

           দেখা যাচ্ছে, পৃথিবীর আদিম অবস্থায় যেমন কেবল জল ছিল, তেমনি সাহিত্যের আদিম অবস্থায়  কেবল ছন্দ তরঙ্গায়িত কবিতা ছিল। তখন যে গদ্য রচনা করাই কঠিন ছিল তা নয়, লোকে অভ্যাস বশতঃ গদ্য প্রবন্ধ সহজে বুঝতে পারত না।

           অতিথি সম্পাদক হিসেবে এই সম্পাদকীয় কলমটিই আমার ২০২১ সালের শেষ কলম। জানিনা, আমার সম্পাদকীয় কলমে শব্দদ্বীপ পরিবারভুক্ত বন্ধুদের ক'জনকে খুশি করতে পেরেছি। যদি এক জনকে ও খুশি করতে পেরে থাকি তো নিজেকে কৃতার্থ মনে করব; আর যে কর্তৃপক্ষ ভরসা করে নবাগত আনাড়ি আমাকে এই গুরু দায়িত্ব অর্পণ করে নিশ্চিন্ত ছিল, তাদের কাছে আমি চিরকৃতজ্ঞ। আমি সাধ্যমতো চেষ্টা করেছি ন্যস্ত দায়িত্বটি যথাসাধ্য পালনের জন্য, কতটা পেরেছি তার শেষ কথা বলার দায়ভার আপনাদের সবার উপর ছেড়েই দিলাম। সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে শেষ করছি।

    

    ইতি
    প্রবোধ কুমার মৃধা

1 comment:

  1. অনিন্দ্য ঘোষDecember 17, 2021 at 9:13 PM

    আন্তরিক অভিনন্দন ও অনেক শুভেচ্ছা !
    মাননীয় সৌম্য ঘোষ মহাশয় ও আপনার (মাননীয় প্রবোধ কুমার মৃধা মহাশয়) সম্পাদকীয় অত্যন্ত সমৃদ্ধ !
    আপনাকে নতুন ইংরাজি বর্ষের অনেক শুভেচ্ছা | ভালো থাকুন ||

    ReplyDelete