Wednesday, October 20, 2021

স্মৃতিকথা - মনিকা চক্রবর্তী

স্মৃতিকথা
- মনিকা চক্রবর্তী

কোকিলের ডাক এখানে খুব একটা শোনা যায় না।সাধারণত কাকের ডাক শুনতে পাওয়াটাই মেলা ভার।যাই হোক আজ সকালের শুরুটা অভিমন্যুর অন্যরকম মনে হচ্ছে। যে ঘরটায় সে শুয়ে আছে সেটা ইট পাথরের তৈরি কোনো ঘর নয়, অভিমন্যু শুয়ে আছে মাটির বিছানায়, ভেসে আসছে মিষ্টি গন্ধ ( শিউলি ফুলের নয়তো!!), মনে ‌বেজে চলেছে সুর। মনে পরছে ছেলেবেলার অনেক অনেক স্মৃতি। ছেলেবেলায় ওরা যে পাড়ায় থাকত তার অলিগলি, মোড়ের দোকান, খেলার মাঠ। মনে পরছে বাবাকে। অভিমন্যু কি এক ভাবতে ভাবতে বিছানা ছেড়ে সোজা চলে এলো বাবার ঘরে।হ্যা!!!! এ ঘরেই বাবা থাকতো। কত স্মৃতি, কত কথা। বাবার ঘরের জানালা ধরে দূরের আকাশে তাকিয়ে অভিমন্যু আনমনে কি যেন বলছে। বাবা ছেড়ে গেলেন অনেক বছর হলো। কিন্তু বাবার সাথে‌ ছড়িয়ে থাকা স্মৃতিগুলো আজও মনে হয় বাস্তব। অভিমন্যুর কখনো মনে হয় না ওর বাবা বেঁচে নেই। অভিমন্যু সবসময় বাবাকে অনুভব করতে পারে। বাবা পূজোর দিনগুলোতে ভোরে উঠে স্নান সেরে নিয়েই বসে যেতেন ঠাকুর ঘরে। সবকিছু সাজিয়ে গুছিয়ে শুরু করতেন মন্ত্র পাঠ। আশেপাশের দু,তিন বাড়ির ছেলে মেয়েরা এসে সে মন্ত্র উচ্চারণে সামিল হতো। পূজো শেষে প্রসাদ বিতরণ করতেন সবাইকে। সাদা ধবধবে ধূতি, গায়ে জড়িয়ে নামাবলি,পৈতে, মুখে নি'লিপ্ত সরল‌ হাসি সব মিলিয়ে অভিমন্যুর বাবাকে মনে হতো স্বর্গ র কোনো এক দূত তার বাবা হয়ে এসে তাদেরকে আলোকিত করে রেখেছে। নতুন জামা, নতুন জুতো সবকিছু পরে বাবার সাথে মন্ডপে মন্ডপে ঘুরে বেড়াত ওরা দুই ভাই।ইনাকে চেন! ইনি গণেশ ঠাকুর আর ঐ যে ইঁদুরছানা -ইনার বাহন।একে একে সবাইকে পরিচয় করিয়ে দিতে দিতে , গল্পে গল্পে কেটে যেত সময়গুলো।
            কত কত রঙ্গিন স্মৃতি।এসব কি ভুলতে পারে কেউ। বাবা নেই কে বলেছে!
অভিমন্যু জানে তার বাবা তার হৃদয়ে মিশে আছে, আকাশের নীলে ছড়িয়ে আছে।।। রাতের তারা হয়ে আছে।। ভালো আছি বাবা।জানি তুমি ও ভালো আছো।।।

No comments:

Post a Comment