Tuesday, October 19, 2021

নিবিড় শ্বাসে আলোর হাওয়া - বিকাশ চন্দ

নিবিড় শ্বাসে আলোর হাওয়া

- বিকাশ চন্দ


শরীর জুড়ে বৃক্ষ পিতার শিকড় চিহ্ন অস্থির সময়ে 
দীর্ঘশ্বাসে কেঁপে ওঠে হাড়মজ্জা অন্তিম বিলাপ, 
মনোময় সকল সন্তাপ ঘিরে আছে আত্মার মতো 
অন্তরঙ্গ সময়ের সকল ঘনিষ্ঠ অবয়ব চুপচাপ, 
নিভৃতে বেড়ে ওঠে দেখে গেছে আড়ালের ক্ষত
মাটি জলের স্পর্শে কতটা টানে রক্তের মায়া স্রোত। 

গ্রীষ্মের ঘামের মতো মাটি ভেজা বৃষ্টি অনাহুত 
ভয়ানক সময়ের চোখ নিবিষ্ট দৃষ্টি খোঁজে মণিরত্ন,
আমার অসহ্য যন্ত্রণার স্পন্দন তোমার বিনত বুকে 
রোদে বদলে গেছে সবুজ গাছের পাতার ছায়া রঙ,
হাতে হাত রাখলে ঝুপ ঝুপ বৃষ্টির সুর অনন্ত আরাম
নেশা হীন তবু টালমাটাল ডেকেছে অনাদৃত বিশ্রাম। 

আকাল সময়ের উষ্ণতা এখনো বোঝে জন্ম আদর
অবাক কথারা মুঠো ভর্তি নড়ে চড়ে উত্তাপে, 
খেলাঘর খুঁজে ফেরে দুদ্দাড় ছোটে হাভাত মুখের সারি 
প্রসন্ন হাসির আড়ালে লুকানো মুস্কিল অযুত যন্ত্রণা, 
বৃক্ষমাতার শেকড়ে বাকড়ে কোজাগরী রাতের দুধ ধানি শিষ
অজস্র গাছে মানুষে কী নিবিড় শ্বাসে আলোর হাওয়া। 

No comments:

Post a Comment