Friday, September 10, 2021

এ্যাম্বুলেন্স - চন্দন বিশ্বাস [ইভেন্ট - ছুটির দিন]

এ্যাম্বুলেন্স
- চন্দন বিশ্বাস

     মোবাইলটা স‍্যুইচ অফ করে ঘুমিয়েছিলাম। কারো ফোনকল বা সুপ্রভাত নোটিফিকেশন  যাতে ঘুম ভাঙাতে না পারে। কানে তুলো গুঁজেছিলাম কেউ ডাকলেও যাতে শুনতে না পাই । সারা সপ্তাহে একটাই ছুটি। ভেবেছিলাম আজ দিনটা আমার । সারাদিন ল‍্যাদ খাবো। পার্বতী গেছেন লক্ষ্মী-গনেশদের নিয়ে বাপের বাড়িতে। কিন্তু সে দৈ এ পোকা।  এ্যাম্বুলেন্স ও কলিং বেলের শব্দে কানের তুলো বেরিয়ে এলো । একটা পর্দা গেল ফেটে। জানলা থেকে মুখ গলিয়ে দেখি,  লক্ষ্মী-গনেশ-কার্তিক-সরস্বতীসহ পার্বতী, মেনকা-ভোলানাথ এবং লক্ষ্মী-গনেশদের মামামামি, মেসোমাসি সপরিবারে দরজায় হাজির। পাঁচটা ওলা ও একটা এ্যাম্বুলেন্স বাড়ির সামনের রাস্তায় পরপর লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে। 
         'শিগগির গেট খুলুন জামাইবাবু। আমরা তো ভাবলাম তালা ভাঙতে হবে । ' শালাবাবুর ক্লোজ আপ হাসি। 
          পার্বতী হুঙ্কার ছাড়লেন , "শিগগির নীচে নেমে এসে গাড়িগুলোর ভাড়া মিটিয়ে দাও। বাব্বা কি দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছিলাম তোমার ফোন স‍্যুইচ অফ দেখে।  বাবাতো বাইপাসের হাসপাতালে ফোন করে একটা বেডও বুক করে ফেলেছে।" 
       মনে মনে বললাম শববাহী গাড়িটা বুক করে এনো কাল সকালে।

No comments:

Post a Comment