Tuesday, September 21, 2021

পত্রিকা ও লেখা নিয়ে দু চার কথা - আবীর মহাপাত্র

পত্রিকা ও লেখা নিয়ে দু চার কথা
- আবীর মহাপাত্র

এখন পত্রিকা কিনে পড়ব ঠিক করেও দুবার ভাবতে হয়। আজকাল বেশ কিছু লেখক কবি নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে লেখতে বসেন না। তাদের নিজস্ব মতামত একরকম জোর করেই চাপিয়ে দেন পাঠকের ওপর। যেমন শিক্ষা দানের সময় শিক্ষক রা শুধুই শিক্ষক, তেমনি লেখক কবিদেরও শুধুই লেখক কবি হিসেবে লেখাই বাঞ্ছনীয়। তাঁরা কোন পন্থায় বিশ্বাস রাখেন, তা তাঁদের লেখায় স্পষ্ট হলে সেই লেখার প্রতি পাঠকদের আগ্রহ কমতে বাধ্য। এরপর আবার যেটা হওয়া উচিৎ নয়, তা হল তাঁদের পন্থা ঘেঁষা লেখা না পেলে, সেই সমস্ত লেখা বাতিল করা। হ্যাঁ, এই সব লেখক কবিদের অনেকে আবার কিছু পত্রিকা চালান, সেই সব পত্রিকায় লেখা ছাপাতে হলে লেখা উৎকৃষ্ট হোক না হোক তাঁদের পন্থা ঘেঁষা হতে হবে সেই লেখা! 
   কিছু লেখক কবি আবার হয়তো কোনও পন্থায় বিশ্বাস রাখেন এমন নয়, তবে প্রচলিত সবকিছুই তাঁদের কাছে নিকৃষ্ট। যেমন - তাঁদের লেখায় নায়িকা প্রেম করবেন, কিন্তু বাড়িতে মেনে নেবে না। বাড়ির লোক জঘন্য ভাবে নায়িকা কে দোষারোপ করবে, পাঠকদের মনে হবে বাবা মা দের মনে তাদের মেয়ের প্রতি কোনও ভালোবাসা নেই! সব ভালোবাসা আছে নায়িকার প্রেমিকের মনে। এরপর নায়িকা কে জোর করে বিয়ে দেওয়া হবে। বর অবশ্যই চাকুরে কিন্তু অবশ্যই পাষণ্ড হবে। সে বিয়ে করবে শুধুমাত্র বৌকে অপমান করতে ও তার ইচ্ছানুযায়ী এবং নায়িকার ইচ্ছার বাইরে নায়িকার সাথে সঙ্গম করতে! এরপর শেষে নায়িকা সম্পর্ক ছেড়ে বেরিয়ে আসবেন ও সাথে সাথেই স্কুল শিক্ষিকা হয়ে সুখে সম্মানের জীবন যাপন করবেন। 
   আমাদের দেশে স্ব স্ব ধর্ম, রীতি মেনে চলার অধিকার আছে, আর এতে কারও কোন ক্ষতি বা অসুবিধা হবার কথা নয়। 'সাহিত্যে সবকিছুই শ্লীল' বলে দাবি করে কিছু সমাজের কাছে অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে অবাধ যৌনতা বা কিছু লোকের কাছে অগ্রহণযোগ্য ভাবে ধর্মীয় বিষয় সাহিত্যের পাতায় প্রকাশ করছেন কিছু লেখক কবি এবং পাঠকদের তা সাহিত্যের খাতিরে গ্রহণ করে সেই লেখা পড়তে হবে ও বাংলা ভাষাকে 'সাবালক' করতে সাহায্য করতে হবে, এমনও দাবি সাহিত্যের পাতায় করছেন তাঁরা। এই সমস্ত লেখকদের মতে বাংলা সাহিত্য এতদিন অযোগ্য লেখক কবিদের হাতে নাবালক হয়ে আছে! 

No comments:

Post a Comment